Opinion

প্রশ্ন হচ্ছে বাংলাদেশ কি ভারত রাষ্ট্রকে এটা আদৌ বলতে পারবে : পিনাকী
Opinion

প্রশ্ন হচ্ছে বাংলাদেশ কি ভারত রাষ্ট্রকে এটা আদৌ বলতে পারবে : পিনাকী

আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে ভারতের সঙ্গে বিগত সময়ের চেয়ে আরও ভালো বন্ধুত্বপূর্ন সম্পর্ক চলচ্ছে বাংলাদেশের সাথে এমনটায় দাবি সরকারের। কিন্তু বাস্তব চিত্রে তার প্রমাণ পাওয়া যায় না বিভিন্ন ঘটনার দিকে দৃষ্টি দিলে। অন্য ন্যায্য পাওনা এখনো এখনো এই সরকার আদায় করতে পারিনি কিন্তু তাদের দেওয়ার ব্যাপারে সরকারের আগ্রহের শেষ নেই। দীর্ঘ দিন ক্ষমতায় থাকার পরও আজও সিমান্ত হ/ত্যাকাণ্ড বন্ধ করতে পারিনি সরকার। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছে পিনাকী ভট্টাচার্য পাঠকদের জন্য হুবহু নিচে দেওয়া হলো। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ৪,০৯৬ কিলোমিটার (২,৫৪৬ মাইল) দীর্ঘ আন্তর্জাতিক সীমান্ত আছে। এই সীমান্তে ভারতের বিএসএফ সাধারণ ও বেসামরিক বাংলাদেশি নাগরিকদের উপর সংগঠিত নিয়মিত নির্যাতন ও হ/ত্যাকাণ্ডচালায়।এইসীমান্ত পৃথবিবির সবচেয়ে সহিংস সীমান্ত। ভারত বলে থাকে চোরাচালান ও বাংলাদেশ থেকে...
আর এক টার্ম ফাকা মাঠে গোল আরেক টার্ম নৈশ ভোট করে নির্বাচন করার যে দক্ষতা দলটার ছিলো সেইটাও হারায়ে ফেলছে :পিনাকী
Opinion

আর এক টার্ম ফাকা মাঠে গোল আরেক টার্ম নৈশ ভোট করে নির্বাচন করার যে দক্ষতা দলটার ছিলো সেইটাও হারায়ে ফেলছে :পিনাকী

সরকার জোর করে ক্ষমতা থেকে দেশের ভোট ব্যবস্থাকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে। যার ফলে দেশের জনগণ তাদের ভোটাধিকার হারিয়েছে। যার পরিপ্রেক্ষিত আগামী সংসদ নির্বাচনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলছে বিদেশী রাষ্ট্রগুলো। বিগত দুটি নির্বাচনে যে সব ঘটনা ঘটেছে তার যেন পুনারাবৃত্তি না ঘটে এমন প্রত্যাশা করেছেন জাপানি রাষ্ট্রদূত। এমন তথ্য প্রকাশ হওয়ার পরও কি সরকার কাছে থেকে প্রত্যাশা করা যায় আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু হবে। বিষয়টি নিয়ে সা/মাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ/কটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন পিনাকী ভট্টাচার্য পা/ঠকদের জন্য হুবহু তু/লে ধরা হলো। তো হাসিনার তো সমুহ বিপদ। জাপানী রাষ্ট্রদুত বলছে উনি জিন্দেগীতে শোনেন নাই কোন দেশের পুলিশ রাইতে ব্যালট বাক্স ভইর‍্যা থোয়। যা হাসিনা করছে। কানাডার রাষ্ট্রদুতের সাথে মির্জা ফকরুল রুদ্ধদার বৈঠক করছে। হাউ ডিক্টেটরশিপ ওয়ার্ক।।মানে স্বৈরশাসন কীভাবে কাজ করে। একজন ভবিষ্যৎ স্বৈরশাসকে...
মানুষের মনের কথা কি বোঝা যায় তাতে, নাকি পিনাকীর শ্রোতারা মানুষ না : আসিফ নজরুল
Opinion

মানুষের মনের কথা কি বোঝা যায় তাতে, নাকি পিনাকীর শ্রোতারা মানুষ না : আসিফ নজরুল

বাংলাদেশে টেভি চ্যানেলগুলো বিভিন্ন অনুষ্ঠান করে থাকে তবে সম্প্রতি টকশো গুলোতে উপস্থিত ব্যক্তিদের যে ভাবে অপ্রাসঙ্গিক প্রশ্ন করা হয় তাতে মন হয় তারই সব জানে কিন্তু উপস্থিত ব্যক্তিরা তেমন কিছু জানেন না। শুধু তাই সরকারের বিভিন্ন বিষয় যে ভাবে তুলে ধরা হয় যে গুলো বিভ্রান্তিমূলক। সরকারের বিরুদ্ধে তারা কথা বলতে চায় না। যার কারনে অনেকের কাছে বিরুক্তির কারন হয়ে দাঁড়ায়। বিষয়টি নিয়ে সা/মাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ/কটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. আসিফ নজরুল পাঠকদের জন্য হু/বহু নিচে দেওয়া হ/লো। পিনাকী ভট্টাচার্য্য দুর বিদেশে একা একা বসে কথা বলে। সেটার গড় ভিউ প্রায় ৬ লক্ষ। আর একাত্তর টিভি এতো আয়োজন করে তিন-চারটা অতিথি নিয়ে একাত্তর জার্নাল অনুষ্ঠান করে। তার এভারেজ ভিউ মাত্র ৬০ হাজারের মতো। পিনাকীর ১০ ভাগের একভাগ! মানুষের মনের কথা কি বোঝা যায় তাতে? নাকি পিনাকীর শ্রোতারা মানুষ না? খ...
গবেষককে যেভাবে অপমান আর অপদস্থ করেছেন তা দেখে হতবাক হয়ে গেলাম : তসলিমা নাসরিন
Opinion

গবেষককে যেভাবে অপমান আর অপদস্থ করেছেন তা দেখে হতবাক হয়ে গেলাম : তসলিমা নাসরিন

সম্প্রতি বাংলাদেশের কিছু গণমাধ্যম কর্মীদের অপ্রত্যাশিত কর্মকান্ডের কারনে বিভিন্ন প্রশ্নের সুন্মখীন হতে হচ্ছে সকল গণমাধ্যম কর্মীদের। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় যে বিষয়গুলি তারা জানেন না কিন্তু বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অথবা টকশোতে সে গুলি নিয়ে প্রশ্ন করে থাকেন। শুধু তাই নয় রীতি মতো তাদের অপমান ও অপদস্থ করেন করে থাকেন। এমন একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিবাদ জানিয়ে যা বললেন নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় বাংলাদেশের একটি অঞ্চলের বেগুনে কিছু ক্যান্সার সৃষ্টিকারী ভারী ধাতুর উপস্থিতি পাওয়া গেছে। কয়েকদিন আগে বাংলাদেশের একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে ডাকা হয় গবেষণা দলের প্রধান বিজ্ঞানী অধ্যাপক জাকির হোসেনকে। বিষয়টি ভালোভাবে জানার জন্য এবং জনগণের সামনে তুলে ধরার জন্যই হয়তো তাকে ডাকা হয়েছিল। কিন্তু সেই টকশোতে ঘটেছে উল্টো। টকশোতে উপস্থাপক তাকে ও অন্য দু'জন (অনলাইনে লিঙ্কযুক্ত) বিভিন্ন...
বাংলাদেশের সাংবাদিকেরা খবর প্রকাশ করেই খান্ত থাকেনা, সে একই সাথে ওই বিষয়ে বিশেষজ্ঞ আর বিচারক হয়ে বসে : পিনাকী
Opinion

বাংলাদেশের সাংবাদিকেরা খবর প্রকাশ করেই খান্ত থাকেনা, সে একই সাথে ওই বিষয়ে বিশেষজ্ঞ আর বিচারক হয়ে বসে : পিনাকী

সাংবাদিকরা সঠিক তথ্য ও উপাত্ত প্রকাশের মাধ্যমে জনগণের নিকট দেশে-বিদেশের সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরেন। যার মাধ্যমে ব্যবসা-বাণিজ্যসহ প্রতিটি সেক্টরে কার্যক্রম পরিচালনা করতে সহজতর হয়। আর এই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালনের ব্যাপারে কেউ ভুল-ত্রুটি ও উদাসীনতা দেখালে ব্যাপক সমস্যার সৃষ্টি হয়। কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে সাংবাদিকদের বিচারকের ও বিশেষজ্ঞের ভূমিকা নেওয়ায় বিতর্কের তৈরী হয়। বিষয়টি নিয়ে সা/মাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ/কটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন পিনাকী ভট্টাচার্য হুবহু পা/ঠকদের জন্য নিচে তু/লে ধরা হলো। একজন সাংবাদিকের জন্য বোকার মতো প্রশ্ন করাটা সমস্যার না। সাংবাদিকেরা বোকার মতো প্রশ্ন করতেই পারেন। ইন ফ্যাক্ট তাদের জন্য বোকার মতো প্রশ্ন করাটাই সঙ্গত। তেমন করেই প্রশ্ন করবে যেন সাধারণ মানুষ সেটা বুঝতে পারে। কিন্তু, বাংলাদেশের সাংবাদিকরা নিজেদের সর্ব বিষয়ে বিশেষজ্ঞ বলে ভাবে। তারা একইসাথে বিশ্ববিদ্য...
সাদাপোশাকের কয়েকজন লোক নুরুকে চট্টগ্রাম নগরের চন্দনপুরা এলাকার বাসা থেকে তুলে নিয়ে যায় : পিনাকী
Opinion

সাদাপোশাকের কয়েকজন লোক নুরুকে চট্টগ্রাম নগরের চন্দনপুরা এলাকার বাসা থেকে তুলে নিয়ে যায় : পিনাকী

সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দ্বারা বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের ওপর নানা নি/র্যাতন, দ/মন পী/ড়ন চালিয়েছে। অবৈধ্য ভাবে ক্ষমতায় টিকে থাকতে এমন ধরনের অপকর্মান্ড চালিয়েছে ক্ষমতাসীনরা। তারা জানে বিরোধী দলকে দমন করতে পারলে তাদের ক্ষমতায় থাকতে কোনো ধরনের চাপের মুখে পড়বে না। বিষয়টি নিয়ে সা/মাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ/কটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন পিনাকী ভট্টাচার্য পাঠকদের জন্য হুবহু নিচে দে/ওয়া হলো। ৩০শে মার্চ সকাল ৬টার দিকে চট্টগ্রামের রাউজান থানাধীন বাগোয়ান ইউনিয়নের কর্ণফুলী নদীর তীরে ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম নুরুর গু/লিবিদ্ধ লা/শ দেখতে পায় স্থানীয়রা। পরে বিকেল ৪টার দিকে লা/শটি উদ্ধার করে পুলিশ। নুরুর পরিবারের অভিযোগ, আগেরদিন বুধবার রাত ১২টায় এসআই জাবেদের নেতৃত্বে সাদাপোশাকের কয়েকজন লোক নুরুকে চট্টগ্রাম নগরের চন্দনপুরা এলাকার বাসা থেকে তুলে নিয়ে যায়। লা/শ উদ্...
জিতলে তো আনন্দ প্রকাশ না করে পারিনা, দেশটা যে আমার : আসিফ নজরুল
Opinion

জিতলে তো আনন্দ প্রকাশ না করে পারিনা, দেশটা যে আমার : আসিফ নজরুল

বাংলাদেশের ক্রিকেট দল বিশ্বে অঙ্গনে তাদের সাফল্য দেখালে কে না আনন্দ প্রকাশ করে। বিশ্বে দেশের নাম উজ্বল করলে দেশের সকল মানুষ গর্ব বোধ করবে এটাই স্বাভাবিক। আর যখন মাঠে তাদের ব্যর্থতা দেখা যায় তখন দেশের মানুষ কষ্ট পায়। দেশকে ভালাবাসা আর দেশের ক্রিকেট, ফুটবলসহ সকল খেলোয়ারদের সাফল্য দেখলে আনন্দে বুক ভরে যায় সকল দেশ প্রেমিক মানুষের। বিষয়টি নিয়ে সা/মাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ/কটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. আসিফ নজরুল পা/ঠকদের জন্য হুবহু দে/ওয়া হলো। বাংলাদেশ ক্রিকেট দল হারলে মন খারাপ করে চুপ হয়ে থাকি। কিন্তু জিতলে তো আনন্দ প্রকাশ না করে পারিনা। দেশটা যে আমার! সাবাস বাংলাদেশ, আজকের বিজয়ের জন্য। প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাফল্য দেখলে আনন্দে বুক ভরে যায় মন্তব্য করেন বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. আসিফ নজরুল। তিনি আরও বলেন, দল খারাপ করলে হয়তো কষ্ট হয় কিন্তু ভালো করলে আনন্দ ক...
এই চরম অর্থনৈতিক দুরাবস্থার সময় রাষ্ট্রপতি চিকিৎসার জন্য বিদেশে গেলেন কেন : আসিফ নজরুল
Opinion

এই চরম অর্থনৈতিক দুরাবস্থার সময় রাষ্ট্রপতি চিকিৎসার জন্য বিদেশে গেলেন কেন : আসিফ নজরুল

বাংলাদেশের চিকিৎসা ব্যবস্থা আগের থেকে বর্তমানে অনেক ভালো। সরকার হাজার হাজার কোটি টাকা খরচ করে উন্নত চিকিৎসা ব্যবস্থা করেছেন। কিন্তু সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাসহ মন্ত্রী-এমপিরা বিদেশে যেয়ে চিকিৎসা নেন। এতে করে দেশের থেকে বিদেশে বিশাল পরিমান অর্থ চলে যায়। সরকারি খরচে যারা বিদেশে চিকিৎসা করেন তারা একবারও দেশের কথা ভাবেন না। বিষয়টি নিয়ে সা/মাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ/কটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন বিশিষ্ট রাজনৈতিক বিশ্লেষক ড. আসিফ নজরুল পা/ঠকদের জন্য হুবহু নিচে দেওয়া হলো। এই চরম অর্থনৈতিক দুরাবস্থার সময় রাষ্ট্রপতি চিকিৎসার জন্য বিদেশে গেলেন কেন? যতোদুর জানি, উনার তো গুরুতর কোন অসুখ না। দেশে সুপার স্পেশালাইজড্ হাসপাতাল হলো হাজার কোটি টাকা ব্যায় করে, সেখানে সাধারণ চিকিৎসাও করা যায়না উনার? উনার সফরসঙ্গী কয়জন, এতে মোট ব্যয় কতো হচ্ছে এবার? উনার রাষ্ট্রপতি জীবনে কতোবার তিনি চিকিৎসার জন্য বিদেশে গেছেন, কত...
এখন বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে আসলেই সেই সাড়ে আট বিলিয়ন ডলার রিজার্ভে নাই : পিনাকী
Opinion

এখন বাংলাদেশ ব্যাংক বলছে আসলেই সেই সাড়ে আট বিলিয়ন ডলার রিজার্ভে নাই : পিনাকী

সম্প্রতি সরকারের দু/র্নীতি ও লু/টপাটের কারনে দেশে অর্থনৈতিক সংকটের সৃষ্টি হয়। উন্নয়নের নামে মেগা প্রকল্পগুলো থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা লুপাটের ও বিদেশে পাচারের কারনে দেশের রিজার্ভে ঘাটতি তৈরী হয়েছে। যার প্রভাব পড়েছে সবচেয়ে বেশি বিদ্যুৎ খাতে। অথচ সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে ইউক্রেন-রাশিয়া সংকটের কারনে এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যো/গাযোগ মাধ্যমে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন পিনাকী ভট্টাচার্য হুবহু পাঠকদের জন্য সেটা নিচে তুলে ধরা হলো। সাড়ে আট বিলিয়ন ডলার যেটা রিজার্ভে নাই কিন্তু দেখানো হয়েছে। আমি এটাকে চুরি বলেছিলাম গত ডিসেম্বরে। কারণ একাউন্টিং টার্মে যেটা নাই সেটা হিসাবে দেখানোকে "চুরি" বা থেফট বলে। তখন আমার উপরে আওয়ামী লীগ ঝাপিয়ে পড়েছিলো আমার উপরে। পড়াই উচিৎ, এটা স্বাভাবিক। কিন্তু সেইসাথে ঝাপিয়ে পড়েছিলো অনন্ত খলিল। এটা আমার কাছে অস্বাভাবিক ঠেকেছিলো। এমনকি সে এমনভাবে আ...