আগামী নির্বাচনে অংশ নেবেন বেগম জিয়া : খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া সাজাপ্রাপ্ত হয়ে অনেক দিন কারাভোগ করেন। বিশ্বব্যাপি ছড়িয়ে পড়া রোগের কারনে সরকারের নির্বাহী আদেশে তিনি বর্তমানে মুক্ত আছেন। তবে তিনি আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না বলে জানান আইনমন্ত্রী। তার এমন বক্তব্যের পর বিষয়টি নিয়ে নানা মহলে নতুন করে আবারও বিতর্ক তৈরী হয় নানা মহলে। নির্বাচনে বেগম খালেদা জিয়া অংশগ্রহন করতে পারবে মন্তব্য করে তার আইনজীবিরা যে কথা জানালেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ নিয়ে বিতর্ক থামছে না। তার আইনজীবী বলেছেন, বেগম জিয়া আগামী নির্বাচনে অংশ নেবেন। তাকে ছাড়া নির্বাচন হতে দেওয়া হবে না। এদিকে দুদকের আইনজীবী বলছেন, বিএনপি নেত্রীর আইনজীবীরা রাস্তায় বসে মা/মলার রায় নিয়ে কথা বলে আদালতকে অবমাননা করছেন।

দু/র্নীতির দুই মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আড়াই বছরের বেশি সময় ধরে কারাগারের বাইরে রয়েছেন। তার সাময়িক মুক্তির মেয়াদ এ পর্যন্ত ৬ বার বাড়ানো হয়েছে। এ অবস্থায় তিনি আগামী জাতীয় নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন কিনা তা নিয়ে চলছে নানা বিতর্ক।

চলতি মাসেই আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বর্তমান আইনে বিএনপি চেয়ারপারসনের আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ নেই।

কিন্তু খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা তা মানতে রাজি নন। তারা বলছেন, বেগম জিয়া আগামী নির্বাচনে অংশ নেবেন। সেই সঙ্গে রাজপথে রাজনৈতিক মামলার নিষ্পত্তি হবে।

সবকিছুই রাজনৈতিক স্ক্রিপ্ট।” বেগম জিয়ার নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সোমবার (৩১ অক্টোবর) তার (খালেদা জিয়ার) আইনজীবী ব্যারিস্টার কায়সার কামাল বলেন, দেশের ১৬ কোটি মানুষ মনে করে এটা রাজনৈতিকভাবে সিদ্ধান্ত হবে। অবশ্য খালেদা জিয়া জাতীয় পরিষদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন এবং তার অংশগ্রহণ ছাড়া আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে না।

বেগম জিয়ার আইনজীবীদের এমন মন্তব্যকে আদালত অবমাননা বলে মনে করেন দুদকের আইনজীবী।

এ প্রসঙ্গে দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান বলেন, আপনারা (বিএনপি) রাজপথে আন্দোলন করবেন কি না সেটা আপনাদের ব্যাপার। খালেদা জিয়ার মামলার সঙ্গে তার কোনো সম্পর্ক নেই। তাই খালেদা জিয়ার মামলার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে হলে হাইকোর্টে বিচারাধীন মা/মলা নিষ্পত্তির চেষ্টা করেন। আপিল বিভাগে নিষ্পত্তির চেষ্টা করেন। এই আলোচনা অপ্রাসঙ্গিক।

সরকারের কাছে বেগম জিয়ার স্থায়ী মুক্তির দাবি জানালেও এখন পর্যন্ত কোনো আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।

প্রসঙ্গত, বেগম খালেদা জিয়া আগামী নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন এমনটায় মন্তব্য করেন তার আইনজীবিরা। তবে বিষয়টি রাজনৈতিক ভাবে মোকাবেলা না করে আইনের মাধ্যমে নিষ্পত্তির করার কথা বলেন দুদকের আইনজীবী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *