অসাধারণ একটি অভিজ্ঞতা, সারা জীবন মনে রাখার মতো : মাহি

ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সামিরা খান মাহি। অসংখ্য জনপ্রিয় নাটক, টেলিফিল্মে অভিনয়ের মাধ্যমে নিজের অবস্থান তৈরী করে নিয়েছেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। বিভিন্ন ঘটনার মাধ্যমে প্রায় আলোচনা এসে থাকেন তিনি। অভিনয়ের পাশাপাশি ভিন্ন এক জীবন যাপনের ইচ্ছা প্রসঙ্গ যে কথা জানাগেল সামিরা খান মাহি সম্পর্কে।

বর্তমান সময়ের তরুণ অভিনেত্রীদের মধ্যে সামিরা খান মাহির নাম আলোচনায় আসে। তিনি তার নিপুণ অভিনয় এবং হাসি দিয়ে খুব অল্প সময়ে দর্শকদের মন জয় করেছেন। এখন ব্যস্ত নাটক নিয়ে। অন্যদিকে সিনেমায় অভিনয়ের প্রস্তাবও রয়েছে। সব মিলিয়ে এই সময়ের হার্টথ্রব তিনি।

তবে অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি বিভিন্ন অ্যাডভেঞ্চার পছন্দ করেন। সুযোগ পেলেই বিভিন্ন অ্যাডভেঞ্চার অনুষ্ঠান-ভিডিও দেখেন। এর পাশাপাশি দুঃসাহসিক জীবনযাপন করতে চেয়েছিলেন এই অভিনেত্রী।

এবার সে ইচ্ছা পূরণ করল। শনিবার (৫ নভেম্বর) গাজীপুরের রাজেন্দ্রপুর ক্রসরোডে অবস্থিত ‘দ্য বেজ ক্যাম্প’ অ্যাডভেঞ্চারে গিয়েছিলেন এই অভিনেত্রী। দেশের প্রথম আউটডোর অ্যাক্টিভিটি ক্যাম্পে দিনভর বিভিন্ন চ্যালেঞ্জিং অ্যাক্টিভিটিতে অংশ নেন।

কখনো তীর-ধনুক দিয়ে নিশানা শিকার করেছেন, কখনো চাকার চৌরাস্তায় দৌড়েছেন, কখনো দড়ি বেয়ে পুকুরের পানিতে নেমেছেন। এরকম আরো দুঃসাহসিক কাজে দিন কাটে তার। আর এই দিনটি তার জীবনের অন্যতম স্মরণীয় বলেও জানান মাহি।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এখানে এসে আমি সত্যিই উচ্ছ্বসিত। সেনাবাহিনীকে প্রাথমিক প্রশিক্ষণও দেওয়া হয় এই ক্যাম্পেই। আমি সেই প্রশিক্ষণের কয়েকটি করেছি। আমার ভাই-বোন এবং নায়ক বাপ্পী চৌধুরীসহ আরও কয়েকজন বন্ধু আমার সঙ্গে আছেন।

তিনি আরও বলেন, সবাই উচ্ছ্বাস আর আনন্দে দিন কাটাচ্ছেন। এটি সত্যিই একটি আশ্চর্যজনক অভিজ্ঞতা, সারাজীবন মনে রাখার মতো। আমার মতে যারা অ্যাডভেঞ্চার ভালোবাসেন তারা এখানে একবার ঘুরে যেতে পারেন। এটা খুব ভাল লা/গবে।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশের শোবিজে বর্তমানে যে কয়েকজন অভিনেত্রী সাফল্যের সিঁড়ি বেয়ে উপরে উঠছেন তাদের মধ্যে একজন হলেন সামিরা খান মাহি। বর্তমানে অভিনয় নিয়েই ব্যস্ত তিনি।

উল্লেখ্য, জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী দুঃসাহসিক জীবন যাপন করতে পছুন্দ করে যার কারনে এখানে এসে তার পছুন্দের বিষয়গুলি করতে পেরে আনন্দ প্রকাশ করেছেন। শুধু তাই নয় দিনটিকে স্মরণীয় বলে আখ্যা দিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *