গত কয়েকদিন আগে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হন। এই সম্মানিত ব্যক্তির করোনা ভাইরাসে উপসর্গ দেখা দিলে তিনি প্রথমে তাদের প্রতিষ্ঠানের উৎপাদিত করোনা শনাক্তের কিট দিয়ে করোনার নমুনা পরীক্ষা করান। এসময় তার করোনার রিপোর্ট পজেটিভ আসে। এরপর তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এরপর তার করোনার নমুনা পরীক্ষা করে বিএসএমএমইউ। এতেও তার করোনার রিপোর্ট পজেটিভ আসে। এদিকে, এই সম্মানিত ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়ার পর তাকে নিয়ে প্রায় সময় অনেকে কথা বলে থাকেন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ট্যাটাস দেন।

করোনা আক্রান্ত গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার কিছুটা অবনতি হয়েছে। এ নিয়ে আজ শুক্রবার (৫ জুন) বিকেলে নিজের ফেসবুক পেইজে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল। তার দেয়া স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হল- ’গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার কিছুটা অবনতি হয়েছে। আসুন, সকলে এই দেশপ্রেমিক মানবদরদী মানুষটার সুস্থতার জন্য দোয়া করি।’

উল্লেখ্য, করোনায় আক্রান্ত গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪ জুন) রাতে তার শ্বাসকষ্ট বেড়ে গিয়েছিল। আজ শুক্রবার (৫ জুন) সকাল সাড়ে ৭টায় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এ তথ্য জানানো হয়েছে। ফেসবুকের ওই পোস্টে বলা হয়, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর জন্য সক‌লে দোয়া কর‌বেন। ওনার শরীর ভা‌লো না। রাতে ওনার শ্বা’সকষ্ট ছিল।

এদিকে, এই সম্মানিত ব্যক্তির জন্য দেশবাসী দোয়া করছেন। তবে তার পরিবারেও করোনা ভাইরাস হানা দিয়েছে। ইতিমধ্যে তার পরিবারে তার স্ত্রী ও ছেলে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। তারা বর্তমানে বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এই সম্মানিত ব্যক্তি ও তার পরিবারের জন্যও তার নিজ এলাকা সহ দেশব্যাপী দোয়া করা হচ্ছে। তবে আজ ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর শারীরিক অবস্থা কিছুটা খারাপ হয়েছে। এ জন্য ড. আসিফ নজরুল তাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তিনি দেশবাসীর কাছে তার জন্য দোয়া চেয়েছেন।