বর্তমান সরকারের সাথে ভারতে খুব ভালো সম্পর্ক। তবে দেশের অনেকে মনে করে ভারতকে বাংলাদেশ যে পরিমাণ ছাড় দেয় ভারত সে তুলনায় বাংলাদেশকে কোন ছাড় দেয় না। এছাড়া দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ভারত বাংলাদেশ থেকে অনেক সুবিধা ভোগ করছে। এমনকি বাংলাদেশ যে ন্যায্য পানি পায় তাও সঠিক ভাবে দিচ্ছে না ভারত। এ সকল বিষয় নিয়ে দেশের অনেক ব্যক্তি বিভিন্ন কথা বলে থাকেন। এবার ভারতের সম্পর্কে কথা বলেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুল। এবার তিনি তার ফেসবুক স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তার স্ট্যাটাস পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো-
প্রথমে ভারতের স্বার্থে তাদেরকে বাংলাদেশের দুটো সামুদ্রিক বন্দর ব্যবহার করার অনুমতি দেয়া হয়। এরপর আমরা জানলাম এসব বন্দর ব্যবহারের জন্য ভারতকে কোন ফি আর শুল্কও দিতে হবে না।
দেশের স্বার্থ বিকিয়ে এভাবে ক্ষমতায় থাকার চেষ্টা করছে অতি- বিতর্কিত বর্তমান সরকার। ভারতও এ সুযোগ নিচ্ছে।
অতীতে নেপাল আর ভূটানে এরকম একতরফা বহু সুবিধা নিয়েছে ভারত। কিন্তু বহু বছর পর মানুষ যখন সুযোগ পেয়েছে রুখে দাড়িয়েছে। নেপাল তো দুরে সরে গেছে, ভূটানও সরে আসছে ভারত থেকে।
আমরা মুক্তিযুদ্ধ করে স্বাধীনতা অর্জনকারী জাতি। আমরা নেপাল আর ভূটানের চেয়ে কম দেশপ্রেমিক আর সচেতন না।
আমাদেরও সময় আসবে। নিজেদের আত্নসম্মান আর স্বার্থকে রক্ষা আমরাও একদিন করতে পারবো।
প্রশ্ন হচ্ছে ভারত নিজে কবে বুঝবে প্রতিবেশী দেশগুলোর জনমতের গুরুত্ব!

উল্লেখ্য, ভারত বাংলাদেশ থেকে পন্য আনা নেয়ার জন্য বাংলাদেশের দুটো সামুদ্রিক বন্দর ব্যবহার করার জন্য অনুমতি পেয়েছে। সরকার বলছে এর ফলে ভারতের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক আরও ভালো দিকে এগিয়েছে। তবে দেশের জনগণ চান বাংলাদেশেরও ন্যায্য অধিকার যেন ভারত দেয়।