দুর্নীতি মামলায় দণ্ডিত হয়ে কারাগারে যাওয়া বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মামলার নথি দুই সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও না আসায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষক ড. আসিফ নজরুল।
টক শো\’র পরিচিত মুখ আসিফ নজরুল রবিবার তার ফেসবুক পেইজে এ ব্যাপারে একটি পোস্ট দিয়েছেন। তিনি ফেসবুকে লিখেছেন:

\’২ সপ্তাহ পার হলো। খালেদা জিয়ার মামলায় বিচারিক আদালতের নথি উচ্চ আদালতে আসেনি আজো! অথচ দুদকেরই আইনজীবী একটি টিভি টকশো-তে বলেছিলেন নথি আসতে বড়জোর পাঁচ-ছয়দিন লাগার কথা। আমি যতদূর জানি নথি নাকি প্রস্তুত থাকে মামলার রায় দেয়ার দিনই।
কোনো মামলাতে এধরনের বিলম্ব কাম্য নয়। বিশেষ করে বিচারটি যখন একাধিকবার গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত একজন সাবেক প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে!\’

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত। রায়ের পর খালেদা জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে নেয়া হয়। তিনি এখনো সেখানেই আছেন।

বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়া উচ্চ আদালতে আপিল করতে ১১ দিন লেগে যায় রায়ের অনুলিপি না পেতে বিলম্বের কারণে। ১৯ ফেব্রুয়ারি রায়ের অনুলিপি পাওয়ার পরদিন উচ্চ আদালতে আপিল করা হয় সাবেক প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে।

২২ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ খালেদা জিয়ার করা আপিল গ্রহণ করে ১৫ দিনের মধ্যে মামলার নথি পাঠানোর আদেশ দেন। সেই অনুযায়ী ৭ মার্চ সেই সময় শেষ হয়। তবে হাইকোর্টের আদেশের কপি বিচারিক আদালতে পৌঁছেছে ২৫ ফেব্রুয়ারি। সেই অনুযায়ী আজ রবিবার হচ্ছে ১৫ দিন। আজও নথি হাইকোর্টে না পৌঁছায় জামিন আবেদনের ব্যাপারে কোনো আদেশ হয়নি। আজ দুপুর নাগাদ নথি আদালতে পৌঁছাতে পারে বলে জানা গেছে। আগামীকাল এ ব্যাপারে আদেশের জন্য দিন ধার্য করেছেন বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ।

সূত্র:ঢাকাটাইমস

News Page Below Ad