জয় বাংলা স্লোগান নিয়ে নিজের ফেসবুক পেজ-এ একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আসিফ নজরুল। তাজাখবরের পাঠকদের জন্য তা হুবহু তুলে ধরা হলো।
তিনি লিখেছেন- জয় বাংলার অপমান। ৭ মার্চের জনসভায় যোগ দিতে গিয়ে জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে তারা ঝাপিয়ে পড়েছিল একজন কিশোরীর উপর। আরো কিছু মেয়েও লাঞ্ছিত হয়েছিল এদিন। গভীর মনোবেদনা নিয়ে আমি তাদের মনোজগৎ বোঝার চেষ্টা করেছি। তারা কি মনে করে আওয়ামী লীগ করলে, জয় বাংলা স্লোগান দিলে যা ইচ্ছে করা যায় এদেশে এখন? হয়তো তাই। হয়তো তারা ভাবে তাদের জন্য সাত খুন মাফ এদেশে এখন।

জয় বাংলা ছিল একাত্তরের মহান মুক্তিযোদ্ধাদের অহংকার। এ স্লোগানকে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে এভাবে অবমাননা করছে এযুগের একশ্রেণির জয় বাংলা স্লোগানধারী। ধিক্কার এদেরকে।

তর এই স্ট্যাটাসের পর অনেকেই তাদের মতামত লিখেছেন। সেখান থেকে কয়েকজনের মতাতম তুলে ধরা হলো। মতিউর রহমান চৌধুরি লিখেছেন- নাটক নাটক নাটক শেখ হাসিনা রচিত পুলিশের ডি,আই,জি পরিচালিত, ইমরান এইচ সরকার গংদের অভিনীত, হলুদ মিডিয়ার প্রচারণার চলিতেছে আম জনতাকে ধোঁকাবাজি!!

সুজন চৌধুরী লিখেছেন- বিএনপি-জামায়াত মরে গেলে পঁচে যায়, এরপর আত্মা হয়ে কৃষকলীগে পরিণত হয়। তারপর নতুন করে জন্মায়। তারপর এদের নির্দেশেই জাফর সাহেবদের ওপর হামলা করা হয়।

শরিফ আহমেদ লিখেছেন- দুঃখ প্রকাশ করার মত কিছুই ঘটে নাই, কেননা এর থেকেও জঘন্যতম কাজ নিয়মিত ঘটে যাচ্ছে যাদের দ্বারা তারাই নাকি সোনার ছেলে!!! এবং এ কথা উনি নিজেই বলেছেন, সুতরাং তার এ ব্যাথায় অামরা ব্যাথিত না!!!

News Page Below Ad