গত বছরের ডিসেম্বর মাসের শেষের দিকে চীনে উহানে প্রথম করোনা ভাইরাস দেখা দেয়। এরপর করোনা ভাইরাস চীনে ছাড়াতে থাকে। তারপর করোনা ভাইরাস বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ছড়িয়ে পড়তে থাকে। চীনের করোনা ভাইরাস এরই মধ্যে ১৮০ এর অধিক দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এদিকে, চীনের করোনা ভাইরাস বিশ্বের অনেক উন্নত দেশে ব্যাপক ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। যার কারণে বিশ্বের প্রতিটি দেশের মানুষ ব্যাপক ভীতিকর পরিস্থিতি দেখা দিয়েছে।


এবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ইতালিতে এক প্রবাসী বাংলা‌দে‌শির প্রাণনাশ হয়েছে। গতকাল শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত ৮টায় মিলানের নিগোয়ারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

প্রবাসী ওই বাংলাদেশির নাম গোলাম মাওলা (৫৫)। তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী। ইতালির বাণিজ্যিক শহর মিলানের বাসিন্দা ছিলেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরেই শ্বাসকষ্টসহ নানা শারীরিক অসুস্থ্যতায় ভুগছিলেন ওই ব্যক্তি।

জানা গেছে, ১৫ দিন আগে অসুস্থ হয়ে ইতালির মিলান শহরের নিগোয়ারা হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনি। সেখানে তার শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। হাসপাতালে এ ভাইরাসের পর সেখানেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

তার স্ত্রীও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের এক ছেলে ও এক মেয়েসহ পুরো পরিবারকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।

ওই বাংলাদেশি মিলানের নিগোয়ারা হাসপাতাল রাখা হয়েছে। তাকে স্বজনদের কাছে হস্তান্তরের বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

উল্লেখ্য, ইতালিতে অনেক মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এছাড়া করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে অনেক মানুষর প্রাণনাশ হয়েছে দেশটিতে। এদিকে, ইতালিতে এখনো অনেক বাংলাদেশি প্রবাসী রয়েছে যারা সেখানে অনেক ভীতিকর পরিস্থিতিতে রয়েছে। এছাড়া গত কয়েকদিন ধরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশটিতে প্রাণনাশের
রেকর্ড সর্বোচ্চ।