চীনের করোনা ভাইরাস এরই মধ্যে বিশ্বের প্রায় ১৬২ টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এই কারণে বিশ্বের প্রতিটি দেশের মানুষের কাছে ব্যাপক ভয়ের নাম করোনা ভাইরাস। করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার আশংকায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশ এরই মধ্যে অন্য দেশের সাথে সকল রকম বিমান যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে। তবে বাংলাদেশ এখনও বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে অনেক মানুষ আসছেন। যার কারণে বাংলাদেশের মানুষের মধ্যে ব্যাপক ভয় লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সৌদি আরব থেকে আন্তর্জাতিক সব ফ্লাইট চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে বিশেষ ব্যবস্থায় আজ মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ১৫ মিনেটে জেদ্দা কিং আবদুল আজিজ আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর থেকে ৪০৯ জন যাত্রী নিয়ে রওয়ানা হয়েছে বাংলাদেশ বিমানের বিশেষ ফ্লাইট বিজি ২৩৬।
গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেদ্দায় কর্মরত বাংলাদেশ বিমানের আঞ্চলিক ব্যবস্থাপক মো. শামসুল হুদা।

তিনি জানান, মঙ্গলবার সৌদি আরব সময় সকাল ৭টা ১৫ মিনিটে জেদ্দা বিমানবন্দর থেকে ৪০৯ জন যাত্রী নিয়ে রওয়ানা হয় বিশেষ ফ্লাইটটি। যাত্রীদের মধ্যে আধিকাংশই ওমরাহ পালন শেষে দেশে ফেরার অপেক্ষায় আটকে পড়া বাংলাদেশি।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে সৌদি আরব সরকার অন্যান্য দেশের সঙ্গে আন্তর্জাতিক সব ফ্লাইট দু’সপ্তাহের জন্য বন্ধ করেছে। দেশটিতে বন্ধ রয়েছে সমুদ্র বন্দর, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সেলুন, রেস্টুরেন্ট, পার্টি সেন্টার ও মার্কেট।

এদিকে, আজ দেশে আরও নতুন দুইজন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীকে সনাক্ত করা হয়েছে। এই নিয়ে দেশে মোট দশজন ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাস পাওয়া গেছে। আজ যে নতুন দুইজন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে তারা দুজনই বিদেশ থেকে এসেছেন। কিন্তু এরপরও বিদেশ থেকে অনেকে দেশে আসছেন।