ভারতের হিন্দু ধর্মীয় ভণ্ড গুরু গুরমিত সিং রামরহিম একজন ধর্ষক, যার বিরুদ্ধে তার নারী ভক্তদের ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। গুরমিতের সঙ্গে মাওলানা দেলওয়ার হোসাইন সাঈদীর তুলনা করে একটি সম্পাদকীয় প্রকাশ করেছে তাদের অনলাইনে।
"বাংলাদেশে সাঈদী, ভারতে গুরমিত সিং" শিরোনামে প্রকাশিত ওই সম্পাদকীয় ফেসবুকে শেয়ারের পর পাঠকদের কড়া সমালোচনার মুখে পড়েছে ইসলামবিদ্বেষী চ্যানেলটি।

এজেএম শফিউল্লাহ নামে এক পাঠক লিখেছেন, "চ্যানেল আই পাগল হয়ে গেছে?"

নুরুল আলম নামে একজন বলেছেন, "কিসের মধ্যা কি পান্তা ভাতে ঘি? দেলোয়ার হোসাইন সাইদী একজন উঁচু মানের আলেম তিনি কোরআন ও হাদিসের আলোকে মানুষজনকে ইসলামের পথে ডাকতে গিয়ে কিছু নামধারী মুসলমান ও বিধর্মীদের চক্ষুশূল হয়েছেন। কেউ কি বলতে পারবে যে দেলোয়ার হোসাইন সাইদী কোন নারী কে তার সাথে রেখেছেন বা তার কোন নারী ভক্ত ছিল? তিনি কি কোন ডেরা বা আস্তানার স্বঘোষিত প্রধান ছিলেন? যে সাংবাদিক বা কলামিস্ট এই রিপোর্ট করেছে সে উদেশ্য প্রণোদিত হয়েই এই রিপোর্ট করছে। তীব্রভাবে নিন্দা ও চরমভাবে হতাশা ব্যাক্ত করছি এই প্রতিবেদনের।"

মহসিন লিখেছেন, " এত জঘন্য দেশে বাস করি বলতে লজ্জা লাগে,দেশে কোন আইন কানুন নেই, কিছু জারজ মিডিয়া গুলোর কারনে আজকে এই অবস্থা। এসব সাংবাদিকের কারনে দেশে অরাজকতা পরিস্থিতির তৈরী হচ্ছে। এগুলো কে জুতাপেটা করে দেশ থেকে বের করে দেওয়া উচিৎ, নয়ত এদেশে কোন ভাল মানুষ আসবে না।"

মহব্বত মিয়া লিখেছেন, "দুধ আর কেরোসিনকে এক করে ফেলা হয়েছে। জনাব দেলোয়ার হোসেন সাঈদীকে মিথ্যা অভিযোগে ফা্ঁসানো হয়েছে। আর গোরমিত রাম,রাহিম সিং নারী কেলেংকারীতে ফেঁসেছেন।"

সালমান লিখেছেন, "আজ CHANEL i মনে হয় পাগল হয়ছি সাইদী সাহেব এর সাথে আমরা কার তুলনা করছি জাতি হিসাবে আমাদের লজ্জা হওয়া দরকার।"
বিডি টুডে