রাজধানী বনানীর দি রেইনট্রি হোটেলে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া দুই ছাত্রীকে ধর্ষণ মামলার আসামিদের ছবি এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল। শুধু ধর্ষণ মামলার আসামিরাই নয়, তাদের স্বজনদের অনেকে ছবিও এখন ঘুরছে ফেসবুকে।
ভাইরাল ছবিগুলোর মধ্যে ধর্ষণ মামলার এক আসামি নাঈম আশরাফকে আওয়ামী লীগ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সাথে এক মঞ্চে দেখা যাচ্ছে।?1494486413855ই-মেকার্স্\’ নামে একটি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক নাঈম আশরাফের গ্রামের বাড়ি সিরাজগঞ্জের কাজীপুর উপজেলার গান্দাইল ইউনিয়নে। তার বাবার নাম আমজাদ হোসেন। আর তার আসল নাম আব্দুল হালিম।?1494486447845এই নাঈম আশরাফ ওরফে আব্দুল হালিম এর আরেকটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। ভাইরাল সেই ছবিতে নাঈম আশরাফকে বর্তমান সরকারের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম এর ছেলের সাথে দেখা যাচ্ছে।

সিরাজগঞ্জের আপদমস্তক \’চিটার\’ হিসেবে পরিচিত নাঈম আশরাফ ওরফে আব্দুল হালিম ঢাকায় বিনোদন জগতেও বেশ পরিচিত। একুশে টিভির অনুষ্ঠান বিভাগের প্রধান ফারহানা নিশোর সাথে নাঈম আশরাফের একটি ছবিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।?1494486490093শুধু নাঈম আশরাফের ছবিই ফেসবুকে ভাইরাল হয়নি, তার বাবা আমজাদ হোসেনের একটি ছবিও এখন ঘুরছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। ভাইরাল সেই ছবিতে আমজাদ হোসেনকে বর্তমান সরকারের সেতুমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সাথে দেখা যাচ্ছে।?1494486474725


এই আমজাদ হোসেন জাতীয় পার্টি হয়ে বিএনপির পর এখন আওয়ামী লীগে ঢোকার চেষ্টা করেছিলেন বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, গত ২৮ মার্চ ওই দুই ছাত্রীকে বনানীর রেইনট্রি হোটেলে আটকে রেখে ধর্ষণ করা হয়। ধর্ষণের সেই দৃশ্য ভিডিও করে এসব তরুণ হুমকি-ধামকিও দেয়া শুরু করে। এই ঘটনার প্রায় এক মাস পর গত ৬ মে রাতে নির্যাতিতা এক ছাত্রী বাদী হয়ে বনানী থানায় মামলা করেন। মামলায় আসামি করা হয়েছে- সাফাত আহমেদ, নাঈম আশরাফ, সাদমান সাকিফ, বিল্লাহ হোসেন ও অজ্ঞাতনামা একজনকে। আসামিদের কেউ এখনও গ্রেফতার হয়নি।
উৎসঃ পরিবর্তন