প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতকাল রাজধানীর মিরপুরের শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের উদ্বোধন করেন। এটি বিপিএল টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের সপ্তম সংস্করণ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী স্মরণে এই বিশেষ সংস্করণটি বঙ্গবন্ধু বিপিএল হিসাবে নামকরন করা হয়েছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড এ উপলক্ষে একটি জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিবিপিএল) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসেছিলেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা সালমান খান। অনুষ্ঠান মঞ্চে কথা বলার একপর্যায়ে তিনি স্মরণ করেন বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামকে।

’ভাইজান’ খ্যাত এই অভিনেতা বলেন, ’আমার বাবা আমাকে বলেছেন, তুমি যখন মঞ্চে উঠবে তখন একজন মানুষের নাম অবশ্যই উল্লেখ করবে। তিনি হচ্ছেন কবি কাজী নজরুল ইসলাম… আমার বাবা তার একজন বড় ভক্ত। তিনি তার অধিকাংশ কবিতাই পড়েছেন।’

এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংক্ষিপ্ত বক্তৃতায় সালমান খান স্মরণ করেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। বঙ্গবন্ধুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে এই জনপ্রিয় অভিনেতা বলেন, ’তিনি (বঙ্গবন্ধু) বাংলাদেশ তৈরি করেছেন… তিনি জাতির পিতা।’

সালমান খান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কথা উল্লেখ করে বলেন, তিনি পরপর তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন। সালমান বলেন, ’বাংলাদেশের জনগণ তাঁকে খুবই ভালোবাসে।’

ক্যাটরিনা কাইফ এই টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তাকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য বিবিপিএলের আয়োজকদের ধন্যবাদ জানান। তিনি আবারো বাংলাদেশে আসার আগ্রহ প্রকাশ করেন। সালমান এবং ক্যাটরিনা দু’জনই বিবিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাদের সাক্ষাতের কথা উল্লেখ করেন। তারা বলেন, এটি তাদের জন্য একটি অবিস্মরণীয় মুহূর্ত ছিল।

তারা ’জয় বাংলা’ এবং ’জয় বঙ্গবন্ধু’ স্লোগান দিয়ে তাদের বক্তব্য শেষ করেন।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী গতকাল সন্ধ্যা ৬ টার দিকে বিপিএলের সপ্তম সংস্করণের ঘোষণার পরপরই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শুরু হয় আতশবাজি প্রদর্শনী। শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু বিপিএল এর সাফল্য কামনা করেছেন। এই মেগা ক্রিকেট ইভেন্টের জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মূল আকর্ষণ ছিলেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খান এবং ক্যাটরিনা কাইফ। ভারতীয় সংগীতশিল্পী সোনু নিগম এবং কৈলাশ খের মঞ্চে ওঠেন এরপর এই দুই ভারতীয় সুপারস্টার মঞ্চে আসেন। দিনের শুরুতে সন্ধ্যায় স্থানীয় শিল্পীদের গান দিয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানটি শুরু হয়েছিল, যেখানে গান পরিবেশন করেছিলেন বাংলাদেশি রকস্টার জেমস।