পাখি ড্রেস নিয়ে কী না ঘটেনি! মারামারি থেকে শুরু করে তালাক সবই কম বেশি ঘটেছে। ভারতীয় বাংলা টেলিভিশন চ্যানেল স্টার জলসার জনপ্রিয় সিরিয়াল ’বোঝেনা সে বোঝেনা’র নায়িকার নামে এ পোশাকের নামকরণ। যার আসল নাম মধুমিতা সরকার। তিনি ভারতীয় সিরিয়ালের খুব জনপ্রিয় মুখ। ভারত থেকে শুরু করে বাংলাদেশেও তার জনপ্রিয়তা অনেক তারাতারি ছড়িয়ে পরে।
তিনি রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন এখানেও পাখি হিসেবে। তার নামে বাজারে আসতে থাকে পাখি ড্রেস, পাখি মেকআপ প্রসাধনীসহ আরও অনেক কিছু। সেই সব পাখি ড্রেস ও সামগ্রী কিনতে না দেয়ায় অনেক স্বামী স্ত্রীই ঝগড়া বিবাদে জড়িয়েছেন। এমনকি পাখি জামা না পেয়ে স্বামীর সাথে রাগ করে বাপের বাড়ি চলে গেছেন স্ত্রী এমন খবরও এসেছে।

এবার সেই পাখি নিজেই ভাঙনের শিকার। ডিভোর্স হয়ে গেল তার। স্বামী সৌরভ চক্রবর্তীর সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে ছাড়াছাড়ির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

২০১১ সালে ’সবিনয় নিবেদন’ সিরিয়ালে কাজ করতে গিয়ে সৌরভের সাথে পরিচয় মধুমিতার। তার ছয় মাস পর শুরু হয় মন দেওয়া নেওয়া। এরপর প্রেম ও বিয়ে। ২০১৫ সালের ২৬ জুলাই সৌরভ চক্রবর্তীকে বিয়ে করেন মধুমিতা।

এতদিন ভালোই ছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করেই তাল কেটে গেছে তাদের দাম্পত্য জীবনের। কেউই আর কারো কাছে শান্তি ও প্রেম খুঁজে পাচ্ছেন না। তাই আলোচনায় বসেই ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তারা চান না এসব নিয়ে কাঁদা ছোড়াছুড়ি হোক।

এরই ভিতর তাদের মধ্যে শুরু হয়েছে বিবাহবিচ্ছেদের নানারকম আইনি প্রক্রিয়া।

তাছাড়া নায়িকা মধুমিতা সরকার এখন তার ওয়েব সিরিজ নিয়ে অনেক ব্যস্ত সময় পার করছেন। তিনি যে সিরিজ নিয়ে ব্যস্ত তার নাম ’জাজমেন্ট ডে’। এটি পরিচালিত করছেন অয়ন চক্রবর্তী। মধুমিতা সিরিজটির শুটিং করতে এখন ভারতের দার্জিলিংয়ে আছেন। তবে তার ডিভোর্স সম্পর্কে তার কাছ থেকে কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
পাখি ড্রেসের নায়িকা মধুমিতার ডিভোর্স
Logo
Print

বিনোদন

 

পাখি ড্রেস নিয়ে কী না ঘটেনি! মারামারি থেকে শুরু করে তালাক সবই কম বেশি ঘটেছে। ভারতীয় বাংলা টেলিভিশন চ্যানেল স্টার জলসার জনপ্রিয় সিরিয়াল ’বোঝেনা সে বোঝেনা’র নায়িকার নামে এ পোশাকের নামকরণ। যার আসল নাম মধুমিতা সরকার। তিনি ভারতীয় সিরিয়ালের খুব জনপ্রিয় মুখ। ভারত থেকে শুরু করে বাংলাদেশেও তার জনপ্রিয়তা অনেক তারাতারি ছড়িয়ে পরে।
তিনি রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন এখানেও পাখি হিসেবে। তার নামে বাজারে আসতে থাকে পাখি ড্রেস, পাখি মেকআপ প্রসাধনীসহ আরও অনেক কিছু। সেই সব পাখি ড্রেস ও সামগ্রী কিনতে না দেয়ায় অনেক স্বামী স্ত্রীই ঝগড়া বিবাদে জড়িয়েছেন। এমনকি পাখি জামা না পেয়ে স্বামীর সাথে রাগ করে বাপের বাড়ি চলে গেছেন স্ত্রী এমন খবরও এসেছে।

এবার সেই পাখি নিজেই ভাঙনের শিকার। ডিভোর্স হয়ে গেল তার। স্বামী সৌরভ চক্রবর্তীর সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে ছাড়াছাড়ির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

২০১১ সালে ’সবিনয় নিবেদন’ সিরিয়ালে কাজ করতে গিয়ে সৌরভের সাথে পরিচয় মধুমিতার। তার ছয় মাস পর শুরু হয় মন দেওয়া নেওয়া। এরপর প্রেম ও বিয়ে। ২০১৫ সালের ২৬ জুলাই সৌরভ চক্রবর্তীকে বিয়ে করেন মধুমিতা।

এতদিন ভালোই ছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করেই তাল কেটে গেছে তাদের দাম্পত্য জীবনের। কেউই আর কারো কাছে শান্তি ও প্রেম খুঁজে পাচ্ছেন না। তাই আলোচনায় বসেই ডিভোর্সের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তারা চান না এসব নিয়ে কাঁদা ছোড়াছুড়ি হোক।

এরই ভিতর তাদের মধ্যে শুরু হয়েছে বিবাহবিচ্ছেদের নানারকম আইনি প্রক্রিয়া।

তাছাড়া নায়িকা মধুমিতা সরকার এখন তার ওয়েব সিরিজ নিয়ে অনেক ব্যস্ত সময় পার করছেন। তিনি যে সিরিজ নিয়ে ব্যস্ত তার নাম ’জাজমেন্ট ডে’। এটি পরিচালিত করছেন অয়ন চক্রবর্তী। মধুমিতা সিরিজটির শুটিং করতে এখন ভারতের দার্জিলিংয়ে আছেন। তবে তার ডিভোর্স সম্পর্কে তার কাছ থেকে কোন বক্তব্য পাওয়া যায়নি।
Template Design © Joomla Templates | GavickPro. All rights reserved.