বাংলাদেশ থেকে প্রতিবছর বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অনেক শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষার জন্য যেয়ে থাকেন। এসকল মেধাবী শিক্ষার্থীরা দেশের জন্য সুনাম বয়ে আনছেন। বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার বলেন, আমি সব সময় বলে থাকি এবং বলতে চাই, বাংলাদেশি থেকে যে সকল শিক্ষার্থী যুক্তরাষ্ট্রে পড়াশোনা করতে গিয়েছে তারা সবাই এক একজন সুপারস্টার। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ থেকে যে সকল শিক্ষার্থীরা আমেরিকায় গিয়াছে তার অধিক মেধাবী ও লেখা-পড়ায় অনেক ভাল।
গতকাল রাজশাহী বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ’আমেরিকান কর্নার’ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ’আমেরিকান কর্নার বাংলাদেশের সিভিল সোসাইটির সঙ্গে আমেরিকার ডেমোক্রেসি শেয়ার করে। পুরো বিশ্বে চার হাজার আমেরিকান কর্নার রয়েছে। বাংলাদেশেও রয়েছে আমেরিকান অ্যাম্বেসি কর্নার, অনলাইন গবেষণা।’

মার্কিন রাষ্ট্রদূত আরো বলেন, ’যদি কোনো শিক্ষার্থী চায় আমেরিকায় স্টাডি করতে, তাহলে সে এখানে এসে জানতে পারবে আমেরিকার অনেক কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চ শিক্ষার প্রসেসগুলো। একাডেমিক সিরিয়াসনেস যারা আমেরিকান সব কলেজেই এপ্লাই করতে পারে। তারা একাডেমিক এবং সোশাল স্টার। ২০১৮ সালে ৭ হাজার ৪৯৬ জন বাংলাদেশি শিক্ষার্থী আমেরিকায় উচ্চ শিক্ষার জন্য গিয়েছে।’

তিনি বলেন, ’ঢাকা, চট্টগ্রাম, খুলনা ও সিলেটে আমেরিকান কর্নার রয়েছে। শিক্ষানগরী এবং ঐতিহ্যবাহী রাজশাহীতেও এটি চালু হলো। এর মাধ্যমে রাজশাহীর শিক্ষার্থীরা যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষাবিষয়ক বিভিন্ন তথ্য খুব সহজে পাবে।

তিনি আরও বলেন, উচ্চশিক্ষা ও তাদের ক্যারিয়ারের জন্য এ কর্নার শিক্ষার্থীদের অনেক বেশি কার্যকর হবে। ইহা সব ধরণের মানুষেরই কাজে লাগবে। আমেরিকায় পড়াশোনার জন্য কীভাবে যাওয়া যেতে পারে, তা সঠিক ভাবে এখান থেকে জানা যাবে।


মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের প্রশংসা করে জানান, বাংলাদেশ থেকে যে সকল শিক্ষার্থীরা আমেরিকায় গিয়াছে তার অধিক মেধাবী ও পড়াশোনায় অনেক ভাল। এ জন্য আমেরিকায় বিশ্ববিদ্যালয়গুলো আরও বেশি পরিমাণ শিক্ষার্থীদের জন্য উচ্চশিক্ষার সুযোগ প্রদান করে আসছে। আমি আশা করি আগামী বছর গুলতে শিক্ষার্থীদের এ ধারা আরো বৃদ্ধি পাবে।