দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রায় সময় সংবাদ উঠে আসে কিছু খারাপ চরিত্রের মানুষ নারীদের সাথে অবৈধ সম্পর্ক করতে চান। এমনকি অনেক সময় গৃহবধুর ঘরে ঢুকে খারাপ কাজ করতে যায় এই সকল খারাপ চরিত্রের লোকেরা। আর এই সকল কর্মকান্ডের সাথে অনেক সময় বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের জড়িত থাকার অভিযোগ উঠে আসে। তেমনি এবার এক গৃহবধুর ঘরে ঢুকে আটক হলেন এক ছাত্রলীগ নেতা। আর এই ঘটনা ঘটেছে ফেনীতে।

ফেনীর পরশুরামে রাতের আঁধারে স্বামীর অনুপস্থিতির সুযোগে গৃহবধুর ঘরে ঢোকার অপরাধে এক যুবককে আটক করে স্থানীয়রা পুলিশে সোপর্দ করেছে।
শনিবার (১৫ নভেম্বর) রাতে এ ঘটনাটি ঘটে।

আটক ব্যক্তির নাম শাহ পরান হোসেন (২৩)।

তিনি উপজেলার মির্জানগর ইউনিয়নের ফকিরের খিল গ্রামের বাসিন্দা ও একই ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক। এ ঘটনা জানাজানি হলে রোববার উপজেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে তাঁকে বহিস্কার করা হয়েছে। এ ঘটনায় গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত পরশুরাম থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার রাত ১২টার দিকে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা শাহ পরান হোসেন ওই নারীর স্বামীর অনুপস্থিতির সুযোগে তার ঘরে ঢোকেন। বিষয়টি টের পেয়ে স্থানীয়রা বাইরে থেকে ঘরের দরজা বন্ধ করে দেয়। শনিবার রাতে ও রোববার সকালে স্থানীয় পর্যায়ে বহু দেনদরবার হয়। খবর পেয়ে পরশুরাম থানা পুলিশ দুপুর ২টার দিকে ওই ঘরের তালা খুলে শাহ পরান হোসেনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

পরশুরাম উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক জমির উদ্দিন ও যুগ্ম আহবায়ক মো. হাবিবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে মির্জানগর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক শাহ পরান হোসেনকে সংগঠন থেকে বহিস্কারের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

পরশুরাম মডেল থানার পরিদর্শক মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম রাতের আঁধারে গৃহবধুর ঘরে ঢোকার অভিযোগে শাহ পরান হোসেন নামে এক যুবককে আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। সূত্র:পূর্বপশ্চিমবিডি

এদিকে, প্রায় সময় সংবাদ উঠে আসছে যে রাজনৈতিক দলের সাথে যুক্ত থেকে কিছু ব্যক্তি অ’নৈতিক কাজের সাথে যুক্ত হচ্ছে। আর এই কারণে দলেরও অনেক বদনাম হচ্ছে বলেন অনেকে। গৃহবধুর ঘরে ঢোকার সংবাদ প্রকাশ হওয়ার পর থেকে ওই ছাত্রলীগ নেতাকে নিয়ে নানা রকম সমালোচনা দেখা দিয়েছে। আর এই কারণে তাকে ইতিমধ্যে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।