গত কয়েকদিন ধরে মুন্সীগঞ্জে একটি বিয়ের ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা দেখা দিয়েছে। জানা যায়, গজারিয়া উপজেলার পোড়াচক বাউশিয়া গ্রামে বিয়ের খাবার নিয়ে বর ও কনে পক্ষের মধ্যে তুমুল মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এর জন্য ঐ বিয়ে ভেঙে গেছে। গত শুক্রবার মুন্সীগঞ্জের উপজেলার পোড়াচক বাউশিয়া গ্রামে বিয়ের সময় বর যাত্রীদের আপ্যায়নের সময় অভিযোগ করে পোলাওয়ের চাল সঠিক ভাবে সিদ্ধ হয়নি। এই অভিযোগে বর ও কনে এই দুই পক্ষের মধ্যে ব্যাপক হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার উপজেলার গুয়াগাছিয়া গ্রামের মৃত ফজল হকের ছেলে ইয়াছিন মিয়ার সঙ্গে পাশের বাউশিয়া ইউনিয়নের পোড়াচক বাউশিয়া গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেনের মেয়ের বিয়ের দিন ধার্য ছিল। যথারীতি দুপুরে শতাধিক বরযাত্রী কনের বাড়িতে খাবার খাওয়ার সময় পোলাওয়ের চাল ঠিকমতো সিদ্ধ হয়নি, এমন অভিযোগ তুলে কনে পক্ষের সঙ্গে তর্কে জড়ান।

এই ঘটনার এক পর্যায়ে বর যাত্রীর কয়েকজন কথা কাটাকাটি শুরু করে এবং কনে বাড়ির লোজকজনের ওপর চরাও হয়। এই সংবাদ পেয়ে স্থানীয় পুলিশ সেখানে উপস্থিত হয় এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এই ঘটনার পর বিয়ে বন্ধ হয়ে যায় এবং বর পক্ষকে গ্রাম্য সালিশিতে করা হয় জরিমানা।

কনের বাবা গনমাধ্যমকে বলেন, এরকম ছোট মনের মানুষদের কাছে আমার মেয়েকে বিয়ে দিব না।

গজারিয়া থানার এসআই রফিকুল ইসলাম বলেন, কনে ও বর পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনায় স্বয়ং কনে পক্ষ বিয়ের সকল কার্যকলাপ বন্ধ করে দিয়েছে। বর ও কনে পক্ষের এবং ঐ এলাকার স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিগন ঘটনাটি মিটিয়ে দিবে বলে জানান।